1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. খেলাধুলা
  5. বিনোদন
  6. তথ্যপ্রযুক্তি
  7. সারাদেশ
  8. ক্যাম্পাস
  9. গণমাধ্যম
  10. ভিডিও গ্যালারী
  11. ফটোগ্যালারী
  12. আমাদের পরিবার
ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪ , ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লক্ষীপুর ও চাঁদপুর জেলায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসাবে ৭৪৫ জন নারী পেলেন ল্যাপটপ

নিউজ ডেস্ক
আপলোড সময় : ৩১-০১-২০২৪ ০৫:৩০:২৬ অপরাহ্ন
আপডেট সময় : ৩১-০১-২০২৪ ০৫:৩০:২৬ অপরাহ্ন
লক্ষীপুর ও চাঁদপুর জেলায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসাবে ৭৪৫ জন নারী পেলেন ল্যাপটপ
হার পাওয়ার প্রকল্পের আওতায় ফেনী, লক্ষীপুর ও চাঁদপুর জেলার ৭৪৫ জন নারী প্রশিক্ষণার্থীদেরকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার উপহার ল্যাপটপ বিতরণ করেন প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকার, স্মার্ট বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার স্মার্ট উপহার বিশ্ব জয়ের হাতিয়ার একটি করে ল্যাপটপ আমাদের ৭৪৫ জন স্মার্ট নারী উদ্যোক্তাদের জন্য নিয়ে এসেছি। আমাদের স্মার্ট নারী উদ্যোক্তাদের সফলতার মধ্য দিয়ে আরো হাজার হাজার নারী উদ্যোক্তা হবার অনুপ্রেরণা পাবে। প্রতিবছর প্রায় ২০ থেকে ২৫ লক্ষ তরুণ-তরুণী কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ করছে, সরকারের পক্ষে তাদের প্রত্যেককে চাকরী দেওয়া সম্ভব নয়। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা প্রায়ই একটি গুরুত্বপূর্ণ কথা বলেন, 'আমাদের তরুণ-তরুণীরা কর্মসংস্থান খুঁজবে না, তৈরি করবে'। ‘হার পাওয়ার’ প্রকল্পের মাধ্যমে ১৩০টি উপজেলায় নারীদের তথ্যপ্রযুক্তিতে দক্ষতা বৃদ্ধিতে নারী ফ্রিল্যান্সার, নারী আইটি সার্ভিস প্রোভাইডার, নারী ই-কমার্স ও নারী কল সেন্টার এজেন্ট এই ৪টি বিষয়ে মোট ২৫,১২৫ জন নারীকে ৫ মাসব্যাপী প্রশিক্ষণ ও ১ মাসের মেন্টরশীপ প্রদান করা হচ্ছে। যেসব প্রশিক্ষণার্থী সফলভাবে প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করবে তাদেরকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে ১টি ল্যাপটপ প্রদান করা হবে। নারী শক্তিকে প্রযুক্তির শক্তির সাথে সম্মেলন ঘটিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০৪১ সালের স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তুলতে চান। তাই তরুণদের পাশাপাশি আমরা নারীদের ফ্রিল্যান্সার ও উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলার জন্য ‘হার পাওয়ার’ প্রকল্পের অধীনে তাদের প্রশিক্ষণের সুযোগ করে দিচ্ছি। আজকের তরুণ-তরুণীদের উপর নির্ভর করছে ২০৪১ সালের স্মার্ট বাংলাদেশ কেমন হবে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলতেন, 'নারীর ক্ষমতায়নের জন্য প্রয়োজন নারীর অর্থনৈতিক স্বচ্ছলতা'। ১৯৯৬ সালে নারী শিক্ষার প্রসার, নারীর কর্মসংস্থান নিশ্চিত করতে এবং যৌতুক প্রথা বন্ধে উদ্যোগ গ্রহণ করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা। আজ থেকে ১৫ বছর আগে আইটি নির্ভর কর্মসংস্থানের সুযোগ ছিলো না। আজ বাংলাদেশে প্রায় ৭ লক্ষ আইটি ফ্রিল্যান্সার, প্রায় ৩ লক্ষাধিক সফটওয়্যার ডেভেলপার, ই-কমার্সে প্রায় ৩ লক্ষাধিক তরুণ-তরুণী সবমিলিয়ে প্রায় ২০ লক্ষ কর্মসংস্থানের সুযোগ আমরা সৃষ্টি করতে পেরেছি এবং শুধুমাত্র আইসিটি খাত থেকে আমরা ১.৯ বিলিয়ন ডলার রপ্তানি আয় করছি। আমরা এখানেই থেমে থাকতে চাই না, সমৃদ্ধির এই যাত্রাকে আরও এগিয়ে নিয়ে স্মার্ট বাংলাদেশ রূপকল্প বাস্তবায়ন করাই আমাদের লক্ষ্য। আমাদের প্রত্যেকেটি ইউনিয়নকে স্মার্ট কর্মসংস্থানের হাব হিসেবে গড়ে তোলার জন্য শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাবের মাধ্যমে ছেলে এবং মেয়েদের ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। বিগত সময়ে ফেনী জেলায় ১১৪টি শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাব আমরা স্থাপন করেছি, এখানে খুব অল্প দিনের মধ্যে আরও ১০০টি ল্যাব স্থাপন করা হবে। পাশাপাশি ফেনীর সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং সরকারি দপ্তরকে হাইস্পিড ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট কানেক্টিভিটির আওতায় নিয়ে আসা হবে। - পলক

নিউজটি আপডেট করেছেন : Daily Sonali Rajshahi

কমেন্ট বক্স

এ জাতীয় আরো খবর

সর্বশেষ সংবাদ