1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. খেলাধুলা
  5. বিনোদন
  6. তথ্যপ্রযুক্তি
  7. সারাদেশ
  8. ক্যাম্পাস
  9. গণমাধ্যম
  10. ভিডিও গ্যালারী
  11. ফটোগ্যালারী
  12. আমাদের পরিবার
ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪ , ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভিডিও রিল তৈরিতে পুলিশের ব্যারিকেডে আগুন, ইউটিউবার গ্রেফতার

নিউজ ডেস্ক
আপলোড সময় : ৩১-০৩-২০২৪ ১০:২৪:৪১ অপরাহ্ন
আপডেট সময় : ৩১-০৩-২০২৪ ১০:২৪:৪১ অপরাহ্ন
ভিডিও রিল তৈরিতে পুলিশের ব্যারিকেডে আগুন, ইউটিউবার গ্রেফতার
বর্তমানে ইনস্টাগ্রাম বা ইউটিউবের রিল বানানোর জন্য মানুষ নিত্যনতুন উপায় খুঁজে বের করছেন। এবার তারই এক নমুনা দেখা গেলো ভারতের রাজধানী দিল্লিতে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্স-হ্যান্ডেলের এক ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যানবাহন ঠাসা এক রাস্তায় হুট করেই ফ্লাইওভারের উপর গাড়ি দাঁড় করিয়ে দেয় এক যুবক। শুধু সেটুকু করেই ক্ষান্ত হয়নি সে। ইনস্টাগ্রাম বা ইউটিউবের রিল বানানোর জন্য পুলিশের ব্যারিকেডেও আগুন ধরিয়ে দেন। জানা গেছে, ওই যুবক একজন ইউটিউবার।
 
ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার পর ওই যুবককে শনাক্ত করে গ্রেফতার করেছে দিল্লি পুলিশ। একইসঙ্গে ট্রাফিক আইন ভঙ্গ করার জন্য ওই যুবককে ৩৬ হাজার রুপি জরিমানাও করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লির পশ্চিম বিহারের একটি ফ্লাইওভারে।
 
ভারতীয় বার্তাসংস্থা পিটিআইয়ের বরাত দিয়ে শনিবার (৩০ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।
 
প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দিল্লির ব্যস্ত ফ্লাইওভারে এসইউভি দিয়ে স্টান্ট করা এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় রিল তৈরি করতে পুলিশ ব্যারিকেডে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার দায়ে শনিবার ২৫ বছর বয়সী এক ইউটিউবার এবং ইনস্টাগ্রাম তারকাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে কর্মকর্তারা শনিবার জানিয়েছেন।
 
এছাড়া দিল্লি পুলিশ ট্রাফিক নিয়ম ও প্রবিধান লঙ্ঘনের দায়ে ওই অভিযুক্তকে ৩৬ হাজার রুপিও জরিমানা করেছে এবং গাড়িটিও জব্দ করেছে।
 
ডেপুটি পুলিশ কমিশনার জিমি চিরাম বলেছেন, ওই ইউটিউবারকে প্রদীপ ঢাকা নামে চিহ্নিত করা হয়েছে। নাংলোইর ছাজ্জু রাম কলোনির বাসিন্দা এই অভিযুক্তকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
 
ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, পুলিশ গাড়িটি বাজেয়াপ্ত করে প্রদীপের বিরুদ্ধে মোটরযান আইনে মামলা দায়ের করেছে। এদিকে যুবককে গ্রেপ্তারের পর দিল্লি পুলিশ ব্যঙ্গ করে এই সংক্রান্ত একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করেছে।
 
তাতে দেখানো হয়েছে, কীভাবে ওই যুবক ট্রাফিক আইন ভঙ্গ করেছে এবং কীভাবে তার গাড়ি বাজেয়াপ্ত ও তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পাশাপাশি ওই যুবকের বিরুদ্ধে পুলিশকে হেনস্থা করারও অভিযোগ উঠেছে। আর এসব অভিযোগের ভিত্তিতে ওই যুবকের বিরুদ্ধে নির্দিষ্ট ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
 
পুলিশ জানিয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়া স্টান্টের জন্য প্রদীপের ব্যবহার করা গাড়িটি তার মায়ের নামে রেজিস্ট্রেশন করা। গাড়িতে বেশ কয়েকটি নকল প্লাস্টিকের অস্ত্রও পেয়েছে পুলিশ। মূলত ট্রাফিক আইন লঙ্ঘনের বিষয়টি সোশ্যাল মিডিয়া থেকে জানতে পারে পুলিশ। রাস্তার মাঝে গাড়ি দাঁড় করানোর ফলে সেখানে যানজট তৈরি হয়। যার ফলে সমস্যায় পড়েন চলাচলরত অন্যান্য মানুষ।
 
অন্যদিকে পুলিশ ব্যারিকেডে আগুন লাগানোর জন্য ব্যবহার করা হয়েছিল রাসায়নিক। এরপর প্রদীপকে শনাক্ত করে গ্রেফতার করা হয়।
 
পুলিশের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে যুবকের প্রোফাইল খতিয়ে দেখার পর জানা যায়- প্রদীপ ইউটিউব কনটেন্ট এবং রিল তৈরি করে আপলোড করার জন্য এসব ভিডিও তৈরি করে।
 
কিন্তু এই কাজে তিনি ট্রাফিক নিয়ম লঙ্ঘনের পাশাপাশি সরকারি সম্পত্তির ক্ষতি করায় তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

নিউজটি আপডেট করেছেন : Daily Sonali Rajshahi

কমেন্ট বক্স

এ জাতীয় আরো খবর

সর্বশেষ সংবাদ